ইউক্রেনকে আরও সাড়ে ২৭ কোটি ডলারের সামরিক সহায়তা দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

আন্তর্জাতিক ব্রেকিং নিউজ

ইউক্রেনকে আরও সাড়ে ২৭ কোটি ডলারের সামরিক সহায়তা প্যাকেজ দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। নতুন এই সহায়তা প্যাকেজের ভেতরে অ্যান্টি-ড্রোন সরঞ্জামের পাশাপাশি আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা শক্তিশালী করার সরঞ্জামও রয়েছে। কয়েকজন মার্কিন কূটনীতিক ও সামরিক কর্মকর্তার বরাতে এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানায় বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

রাশিয়ার বিরুদ্ধে চলমান যুদ্ধে ড্রোন হামলা প্রতিহত করতে এবং আকাশ প্রতিরক্ষাব্যবস্থা শক্তিশালী করার জন্যই মূলত ইউক্রেনকে নতুন করে এই সামরিক সহায়তা প্যাকেজ পাঠানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। প্যাকেজটির ঘোষণা আসতে পারে শুক্রবার।

ইউক্রেনের জন্য সম্ভাব্য এই নতুন সামরিক সহায়তা প্যাকেজে লকহিড মার্টিন করপোরেশনের তৈরি হাই মোবিলিটি আর্টিলারি রকেট সিস্টেম (হিমারস) লঞ্চার, গোলাবারুদ, হামভি সামরিক যান ও জেনারেটর অন্তর্ভুক্ত থাকবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

অবশ্য যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল সিকিউরিটি কাউন্সিলের পক্ষ থেকে সহায়তা প্যাকেজ নিয়ে মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানানো হয়েছে। কারণ মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন সই না করা পর্যন্ত এই সহায়তা প্যাকেজের বিষয়বস্তু ও পরিমাণ পরিবর্তন হতে পারে। বিষয়টি সম্পর্কে হোয়াইট হাউসও কিছু নিশ্চিত করেনি।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে রাশিয়ায় অভিযান শুরুর পর থেকে কয়েক দফায় কিয়েভকে সামরিক সহায়তা পাঠিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এই সহায়তার পরিমাণ ১ হাজার ৯১০ কোটি ডলার। এর মধ্যে রয়েছে আর্টিলারি সিস্টেম, সামরিক বাহিনীর সদস্য বহন করার বাহন, হেলিকপ্টার, অ্যান্টি-আর্মার, অ্যান্টি-এয়ারক্রাফট সিস্টেম, বিভিন্ন ছোট অস্ত্র, বিভিন্ন ক্যালিবারের গোলাবারুদ, বডি আর্মার মতো সরঞ্জাম। এ ছাড়া ইউক্রেনকে জ্যাভেলিন, অ্যান্টি-ট্যাংক অস্ত্র, কয়েক হাজার রাইফেল, কয়েক কোটি বুলেট এবং অন্যান্য যুদ্ধ সরঞ্জামও সরবরাহ করে আমেরিকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *