জাপানের ব্যবসায়ীদের কাছে বড় বিনিয়োগ চাইলেন প্রধানমন্ত্রী

অর্থনীতি

বাংলাদেশে বড় পরিসরে বিনিয়োগ করতে জাপানের ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, ‘বিনিয়োগের জন্য বাংলাদেশ একটি লাভজনক স্থান। জাপানের বেসরকারি কোম্পানিগুলো এদেশে আরো বড় পরিসরে বিনিয়োগ করতে পারে।’ গণভবনে গতকাল প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে যান ঢাকায় জাপানের বিদায়ী রাষ্ট্রদূত ইতো নাওকি। জাপানি দূতের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী এ আহ্বান জানান। প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

বৈশ্বিক উষ্ণতা রোধে দ্বিগুণ চেষ্টার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর: বৈশ্বিক উষ্ণতা ১ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখতে সব দেশের প্রচেষ্টাকে দ্বিগুণ করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি কার্বন নির্গমনে দায়ী প্রধান সব দেশগুলোকে তাদের জাতীয়ভাবে নির্ধারিত অবদানের সুযোগ আরো বাড়ানোর আহ্বান জানিয়ে বলেন, ‘বৈশ্বিক উষ্ণতা ১ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখতে আমাদের সবাইকে নিজেদের প্রচেষ্টা দ্বিগুণ করতে হবে।’ ঢাকার ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে গতকাল আয়োজিত ‘গ্লোবাল হাব অন লোকালি লেড অ্যাডাপটেশন’-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে এ আহ্বান জানান তিনি। অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত ছিলেন সরকারপ্রধান।

জলবায়ু পরিবর্তনে বাংলাদেশের ক্ষতির কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের সরকার এখন জিডিপির ৬ বা ৭ শতাংশ জলবায়ু অভিযোজনে ব্যয় করে। আমরা সম্প্রতি ২০২৩-৫০ মেয়াদি জাতীয় অভিযোজন পরিকল্পনা গ্রহণ করেছি। আমরা নিজস্ব সম্পদ দিয়ে ২০০৯ সালে একটি জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্ট ফান্ড গঠন করেছি। এ তহবিল থেকে এখন পর্যন্ত জলবায়ু অভিযোজন এবং প্রশমনের ক্ষেত্রে ৮০০টি প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হয়েছে।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘জাতীয় অভিযোজন পরিকল্পনা বাস্তবায়নে অভ্যন্তরীণ এবং আন্তর্জাতিক দুদিক থেকে আমাদের ২৩০ বিলিয়ন ডলার প্রয়োজন। আন্তর্জাতিক জলবায়ু অর্থায়ন থেকে অভিযোজন ও প্রশমনের মধ্যে ৫০-৫০ বণ্টনের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ।’ জলবায়ু অভিযোজনে বাংলাদেশের প্রচেষ্টায় অংশীদার হতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমি প্যারিস চুক্তির আলোকে এ প্রচেষ্টায় আমাদের সঙ্গে যোগ দিতে আন্তর্জাতিক সরকারি ও বেসরকারি খাতকে এগিয়ে এসে আমাদের অংশীদার হওয়ার আমন্ত্রণ জানাচ্ছি।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *