গোল্ডেন বুট এমবাপ্পের

ক্রীড়া জগত ফুটবল ব্রেকিং নিউজ

কাতারের লুসাইল স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপের ফাইনালে গতকাল মুখোমুখি আর্জেন্টিনা ও ফ্রান্স। সেই ম্যাচে প্রথমার্ধে আর্জেন্টিনা ২-০ গোলে এগিয়ে থাকলেও দ্বিতীয়ার্ধে ২-২ এ সমতায় ফেরে ফ্রান্স। সমতায় ফেরানোর নায়ক কিলিয়ান এমবাপ্পে। রাশিয়া বিশ্বকাপের পর কাতার বিশ্বকাপে দুর্দান্ত খেলছেন কিলিয়ান এমবাপ্পে। গত বিশ্বকাপে করেছিলেন চার চার গোল। তবে বিশ্বকাপে এই আসের মেসির ৭ গোলকে টপকে ৭ ম্যাচে ৮ গোল করে জিতে নেন টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ গোলদাতার খেতাব গোল্ডেন বুট।

রাশিয়া বিশ্বকাপের ফাইনালে গোল করার পর কাতার বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ১টি গোল করেন এমবাপ্পে। এরপর দ্বিতীয় ম্যাচে ডেনমার্কের বিপক্ষে করেন জোড়া গোল। তার জোড়া গোলে গ্রুপ সেরা হয়ে দ্বিতীয় রাউন্ড নিশ্চিত করে ফ্রান্স।

নকআউট পর্বে পোল্যান্ডের বিপক্ষে ৩-১ গোলে ম্যাচ জিতে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করে ফ্রান্স। এ ম্যাচেও জোড়া গোল করেন এমবাপ্পে। শেষ ম্যাচে তিউনিশিয়ার বিপক্ষে ১-০ গোলে হেরে যায় বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। শেষ ষোলো, কোয়ার্টার ফাইনাল এমনকি সেমিফাইনালে গোলের দেখা না পেলেও ফাইনালে নিজের জাত চেনান এমবাপ্পে। দুর্দান্ত হ্যাটট্রিক করে ছাড়িয়ে যান মেসিকে।

বিশ্বকাপে গোল্ডেন বুটের দৌড়ে আগে এগিয়ে ছিলেন মেসি। ফাইনালের আগে সমান সংখ্যক ৫টি করে গোল নিয়ে সমান সমান অবস্থানে ছিলেন লিওনেল মেসি এবং কিলিয়ান এমবাপ্পে। পাশাপাশি ৪ গোল করে গোল্ডেন বুটের লড়াইয়ে ছিলেন আর্জেন্টিনার জুলিয়ান আলভারেজ ও ফ্রান্সের অলিভার জিরুড।

তবে অ্যাসিস্টের দিক থেকে মেসি ছিলেন এগিয়ে। তার দেয়া পাস থেকে ৩টি গোল হয়েছে। আর এমবাপ্পের দুইটি। ফাইনালে প্রথমার্ধে ২-০ গোলে এগিয়ে যায় আর্জেন্টিনা। সেখানে ১ গোল করে এমবাপ্পেকে ছাড়িয়ে যান মেসি। তবে এমবাপ্পে শো শুরু হয় দ্বিতীয়ার্ধে। দ্বিতীয়ার্ধে ২-২ গোলে সমতায় ফেরে ফ্রান্স। ফ্রান্সের হয়ে দুটি গোলই আসে এমবাপ্পের পা থেকে। ম্যাচের ৮০ মিনিটে স্পট কিক থেকে ব্যবধান কমান তিনি। এর পরের মিনেটেই দারুণ এক গোল করে বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের সমতায় ফেরান এমবাপ্পে। অতিরিক্ত সময়ে আবারো মেসির গোলে এগিয়ে যায় আর্জেন্টিনা। তবে অতিরিক্ত সময়ের শেষ দিকে আবারো স্পট কিক থেকে ৩-৩ এ সমতায় ফেরান এমবাপ্পে। ভাভা, পেলে, ব্রাইটনার এবং জিদানের পর পঞ্চম খেলোয়াড় হিসেবে দুই বিশ্বকাপের ফাইনালে গোল পান তিনি। ২০১৮ সালে রাশিয়া বিশ্বকাপে দিদিয়ের দেশমের অধীনে শিরোপা জয় করে ফ্রান্স। সেই আসরের নকআউট ও ফাইনালে গোল করেন কিলিয়ান এমবাপ্পে। ফ্রান্সের হয়ে বিশ্বকাপে সর্বকনিষ্ঠ গোলদাতা এবং পেলের পর দ্বিতীয় তরুণ খেলোয়াড় হিসেবে বিশ্বকাপের ফাইনালে গোল করেন তিনি। ২০১৮ ফিফা বিশ্বকাপের সেরা যুব খেলোয়াড়ের পুরস্কার এবং টানা তিন মৌসুম লিগ ওয়ানের শীর্ষ গোলদাতার পুরস্কার লাভ করেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *