ভারতীয় কাশির সিরাপ সেবনে এবার উজবেকিস্তানে ১৮ শিশুর মৃত্যুর খবর

আন্তর্জাতিক

ভারতীয় কোম্পানির তৈরি কাশির সিরাপ সেবনে ১৮ শিশুর মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি করেছে উজবেকিস্তান। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাতে বৃহস্পতিবার (২৯ ডিসেম্বর) এনডিটিভি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

বিবৃতিতে উজবেকিস্তানের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, ভারতের উত্তর প্রদেশের নৈডাভিত্তিক মেরিয়ন বায়োটেকের ডক-১ ম্যাক্স সিরাপ সেবন করে ১৮ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। সর্দি ও ফ্লুর উপসর্গের চিকিৎসা হিসেবে ডক-১ ম্যাক্স ওষুধটি বাজারজাত করা হয়।

ল্যাবরেটরিতে পরীক্ষায় দেখা গেছে, ডক-১ ম্যাক্স সিরাপে ইথিলিন গ্লাইকলের মতো বিষাক্ত উপাদান রয়েছে। উজবেকিস্তানের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, সিরাপগুলো চিকিৎসকদের পরামর্শ ছাড়াই শিশুদের খাওয়ানো হয়েছিল। ঠান্ডাজনিত সমস্যার প্রতিষেধক হিসেবে ফার্মাসিস্টের পরামর্শে পিতা-মাতা শিশুদের এই সিরাপ দেন বলে জানা যায়। এমনকি শিশুদের জন্য নির্ধারিত ডোজের চেয়ে বেশি পরিমাণে প্রয়োগ করা হয়েছিল। 

এ ঘটনার পর ডক-১ ম্যাক্স সিরাপ ও ট্যাবলেট দেশটির বাজার থেকে তুলে নেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া সঠিক সময়ে পদক্ষেপ নিতে না পারায় সাতজন কর্মীকে বরখাস্ত করা হয়েছে। 

এ নিয়ে চলতি বছর দ্বিতীয়বার কাশির সিরাপ খেয়ে শিশু মৃত্যুর খবর মিলল। এর আগে ভারতীয় কোম্পানির তৈরি কাশির সিরাপ খেয়ে গাম্বিয়ায় ৬৬ শিশুর মৃত্যু হয়। প্রাথমিক তদন্তের পর ধারণা করা হয়, ভারতীয় মেইডেন ফার্মাসিউটিক্যালসের তৈরি সিরাপের কারণেই এমনটি হয়েছিল। এর জেরে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) ভারতীয় চারটি কোম্পানির কাশির সিরাপ সম্পর্কে বিশ্বব্যাপী সতর্কতাও জারি করে। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *