ইসলামী ব্যাংককে ৮ হাজার কোটি টাকা ধার দিলো কেন্দ্রীয় ব্যাংক

অর্থনীতি ব্রেকিং নিউজ

বেশ কিছুদিন ধরে তারল্য সংকটে ভোগা ইসলামী ব্যাংককে তারল্য পরিস্থিতির উন্নয়নে সুদভিত্তিক ৮ হাজার কোটি টাকা ধার দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। ইসলামী ব্যাংকের ‘ডিমান্ড প্রমিসরি নোট’-এর বিপরীতে এ অর্থ ধার দেওয়া হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। যার সুদের হার ৮ দশমিক ৭৫ শতাংশ।

‘ডিমান্ড প্রমিসরি নোট’ অর্থাৎ কোনো কারণে ব্যাংকটি দেউলিয়া হলে সম্পদ বিক্রির অর্থ থেকে সর্বপ্রথম কেন্দ্রীয় ব্যাংকের দায় মেটানোর শর্তে এ অর্থ দেওয়া হয়েছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংক বিরল এই সুবিধা দিয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে জানা গেছে, ইসলামী ব্যাংক আর্থিক সূচকে শক্তিশালী অবস্থানে থাকলে সাম্প্রতিক বিভিন্ন প্রচারণার কারণে এই ব্যাংক থেকে বড় অঙ্কের আমানত উত্তোলন হয়েছে। যে কারণে ইসলামী ব্যাংক সিআরআর ও এসএলআর রাখতে ব্যর্থ হচ্ছে। এ অবস্থায় ব্যাংকটির চাহিদা অনুযায়ী ৮ হাজার কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে।

সাধারণত সুকুক বন্ড ও বাংলাদেশ সরকার ইসলামিক বিনিয়োগ বন্ড জমা দিয়ে শরিয়াহ ব্যাংকগুলো টাকা ধার নেয়। তবে ইসলামী ব্যাংকের ব্যবহারযোগ্য বন্ড শেষ হয়ে এসেছে। ফলে বিরল এই ব্যবস্থায় টাকা ধার দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। যদিও শরিয়াহ ব্যাংকগুলোকে নির্দিষ্ট সুদে টাকা ধার নেওয়ার সুযোগ নেই।

এর আগে ইসলামী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মুহাম্মদ মুনিরুল মওলা গত ২৯ ডিসেম্বর কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কাছে এক চিঠিতে এই বিশেষ তহবিল চেয়ে আবেদন করেন।

আবেদনের কয়েক ঘণ্টার মধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংক এই অনুমোদন দেয়। গত বছরের শেষ কার্যদিবসে ব্যাংকটিকে ৮ হাজার কোটি টাকা দেওয়া হয়। এর ফলে গত বছরের আর্থিক প্রতিবেদনে প্রকৃত চিত্রের পরিবর্তনে তুলনামূলক ভালো দেখানোর সুযোগ পায় ইসলামী ব্যাংক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *