চীনে করোনায় এক মাসে ৬০ হাজার মানুষের মৃত্যু

আন্তর্জাতিক

করোনাকালীন কঠোর বিধিনিষেধ ‘জিরো কোভিড নীতি’ বাতিলের পর গত এক মাসে চীনে ৬০ হাজার মানুষ মারা গেছে। যাদের মৃত্যু হয়েছে তাদের অধিকাংশের বয়স ৮০ বছরের বেশি। শনিবার (১৪ জানুয়ারি) এক ঘোষণায় এ তথ্য জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

বিবিসির খবরে বলা হয়, চীনে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর হার শূন্যের কোটায় নামিয়ে আনতে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করেছিল দেশটির সরকার। কিন্তু সাধারণ মানুষের বিক্ষোভের মুখে গত ডিসেম্বরে এই নীতি থেকে সরে আসতে বাধ্য হয়। এরপর থেকে নতুন করে করোনা সংক্রমণের ঢেউ দেখা দিয়েছে বিভিন্ন অঞ্চলে।

চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশনের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, গত ৮ ডিসেম্বর থেকে ১২ জানুয়ারির মধ্যে মোট ৫৯ হাজার ৯৩৮ জন করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। গত এক মাসের কিছু বেশি সময়ে করোনার কারণে ফুসফুসে মারাত্মক সংক্রমণে ৫ হাজার ৫০৩ জনের মৃত্যুর তথ্য রেকর্ড করেছে স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটগুলো। আর ৫৪ হাজার ৪৩৫ জন করোনার সঙ্গে অন্যান্য শারীরিক জটিলতার কারণে মারা গেছেন বলে জানান স্বাস্থ্য কমিশনের কর্মকর্তারা।

চীনা কর্মকর্তাদের বরাতে বিবিসি জানায়, চলতি জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে চীনের হাসপাতালগুলোয় সংকটাপন্ন করোনা রোগীর সংখ্যা আশঙ্কাজনক হারে বেড়ে যায়। এখনো ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা অনেক বেশি।

এদিকে করোনার কারণে মৃত্যুর বিষয়ে চীন সরকারের বক্তব্যের সমালোচনা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। তবে বেইজিং বলেছে, মৃত্যুর সংখ্যা নিয়ে তাদের দেওয়া তথ্য ‘সঠিক’।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *