চলচ্চিত্র প্রযোজনায় শমী

বিনোদন

ঢাকা থিয়েটারের নাট্যকর্মী হিসেবে অভিনয়ে পথচলা শুরু করেন শমী কায়সার। এরপর ১৯৮৯ সালে ‘কে বা আপন কে বা পর’ নাটক দিয়ে টিভি নাটকে অভিনয় শুরু করেন তিনি। কাজ করেছেন বাংলা সিনেমায়ও। চাষী নজরুল ইসলাম পরিচালিত ‘হাছনরাজা’ এবং তানভীর মোকাম্মেল পরিচালিত ‘লালন’ সিনেমায় তাঁর অভিনয় বেশ প্রশংসিত হয়েছিল।

অভিনয় থেকে এখন তিনি অনেকটাই দূরে। ব্যবসায়িক কাজ নিয়েই বর্তমানে ব্যস্ত এ অভিনেত্রী। সর্বশেষ ২০১৮ সালে চয়নিকা চৌধুরীর পরিচালনায় ‘সাড়ে তিনখানা চিঠি’ নাটকে অভিনয় করেন তিনি। নতুন খবর হলো, শমী কায়সার আবারও ফিরছেন চলচ্চিত্রে। তবে অভিনয়ে নয়, সিনেমা প্রযোজনা করবেন তিনি। এমনটিই জানিয়েছেন শমী কায়সার।

সিনেমা প্রযোজনার বিষয়ে শমী কায়সার বলেন, ‘এখনো অনেক দর্শক আমাকে নতুন নাটকে অভিনয়ের কথা জিজ্ঞেস করেন। আপাতত অভিনয় না করা হলেও আমার ভক্ত-দর্শকের জন্য একটি সুখবর দিতে চাই। শিগগিরই আমার প্রযোজনায় দুটি নতুন সিনেমার কাজ শুরু হতে যাচ্ছে। এখন শিল্পী নির্বাচন চলছে। আগামী ফেব্রুয়ারিতে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বিস্তারিত জানাব।’

চলচ্চিত্র প্রযোজনায় নতুন হলেও বেশ কিছু নাটক প্রযোজনা করেছেন শমী কায়সার। ১৯৯৭ সালে তিনি গড়ে তোলেন প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ধানসিঁড়ি প্রোডাকশন। এই প্রতিষ্ঠানের ব্যানারে ‘মুক্তি’ ও ‘অন্তরে-নিরন্তরে’ শিরোনামে নাটক তৈরি হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *