রেমিট্যান্সের পর চমক দেখাচ্ছে রপ্তানি আয়ও

অর্থনীতি

বিশ্বমন্দার মধ্যে দেশের প্রবাসী আয় বা রেমিট্যান্সের পর এবার রপ্তানি আয়েও চমক দেখাচ্ছে। নতুন বছরের প্রথম মাস জানুয়ারিতে ৫১৩ কোটি ৬২ লাখ ৪০ হাজার ডলারের পণ্য রপ্তানি হয়েছে, যা গত বছরের একই মাসের চেয়ে ২৮ কোটি ৫৮ লাখ ৭০ হাজার ডলার বেশি। দেশীয় মুদ্রায় (বর্তমান ডলারের বিনিময় হার ১০৭ টাকা ধরে) রপ্তানি বেশি হয়েছে তিন হাজার ১০০ কোটি টাকা।

রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো (ইপিবি) বৃহস্পতিবার এ তথ্য প্রকাশ করেছে। 

এর আগে ২০২২ সালের জানুয়ারিতে রপ্তানি আয় হয়েছিল ৪৮৫ কোটি ৩ লাখ ৭০ হাজার ডলার। শতাংশের হিসাবে ২০২২ সালের জানুয়ারির তুলনায় ২০২৩ সালের জানুয়ারিতে রপ্তানি আয় ৫ দশমিক ৮৯ শতাংশ বেড়েছে।

অন্যদিকে অর্থবছরের হিসাবে চলতি ২০২২-২৩ অর্থবছরের জুলাই থেকে জানুয়ারি পর্যন্ত গত সাত মাসে সার্বিক রপ্তানি বেড়েছে প্রায় ১০ শতাংশ। মোট তিন হাজার ২৪৫ কোটি ডলারের পণ্য রপ্তানি হয়েছে এ সময়। এই আয় সরকার নির্ধারিত গত সাত মাসের লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে সামান্য বেশি।

এদিকে ২০২২ সালের তুলনায় রপ্তানি আয় বাড়লেও লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ২ দশমিক ১০ শতাংশ কমেছে রপ্তানি আয়। চলতি অর্থবছরের জানুয়ারি মাসে বিশ্ববাজারে বাংলাদেশের পণ্য রপ্তানির লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৫২৪ কোটি ৬০ লাখ ডলার। আর রপ্তানি হয়েছে ৫১৩ কোটি ৬২ লাখ ৪০ হাজার ডলার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *