নাগপুর টেস্ট-জেনে-বুঝে ‘স্পিন বিষে নীল’ অজিরা

ক্রিকেট ক্রীড়া জগত

সৈন্য-সামন্ত, অস্ত্র-পরিকল্পনার খবর জানিয়ে দিয়ে কিংবা জেনেও বিপদ ঠেকানোর পথ থাকে না। বোর্ডার-গাভাস্কার সিরিজে নাগপুরে প্রথম টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গেও তেমনটাই হয়েছে। স্টিথ স্মিথই বলেছিলেন, উইকেট শুষ্ক হবে। ভারত তিন স্পিনার নিয়ে খেলতে পারে। বাঁ-হাতি স্পিনাররা সুবিধা পাবে। 

হয়েছেও তাই। তিন স্পিনার নিয়ে খেলেছে ভারত। দুই স্পিনারকে আট উইকেট দিয়ে স্পিন বিষে নীল হয়েছে অস্ট্রেলিয়া। বাঁ-হাতি স্পিনার অক্ষর প্যাটেল উইকেট না পেলেও ইনজুরি থেকে ফিরেই স্পিন অলরাউন্ডার রবিন্দ্র জাদেজা পাঁচ উইকেট তুলে নিয়েছেন। অস্ট্রেলিয়া প্রথম ইনিংসে ৬৩.৫ ওভারে ১৭৭ রানে অলআউট হয়েছে। 

স্পিনে নীল হলেও ধাক্কাটা প্রথম দেন ভারতীয় পেসাররা। ওপেনার উসমান খাজাকে দ্বিতীয় ওভারেই তুলে নেন মোহাম্মদ সিরাজ। লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন তিনি। পরের ওভারে ডেভিড ওয়ার্নারকে বোল্ড করে দেন মোহাম্মদ শামি। ২ রানে ২ উইকেট হারায় সফরকারীরা। 

এরপর দৃঢ়তা দেখান মার্নাস লাবুশানে ও স্টিভ স্মিথ। তারা ৮২ রানের জুটি গড়েন। জাদেজা পরপর দুই বলে মার্নাস লাবুশানে  ও রেনশোকে আউট করেন। লাবুশানে ১২৩ বলে ৪৯ রান করে স্টাম্পড হন। রেনশো শূন্য রানে বোল্ড হন। এরপর স্মিথকে তুলে নেন জাদেজা। তিনি করেন ১০৭ বলে ৩৭ রান। অস্ট্রেলিয়া ১০৯ রানে হারায় ৫ উইকেট।

এরপর পিটার হ্যান্ডসকম্ব ও অ্যালেক্স কেরি জুটি গড়ে দলকে ভরসা দেওয়ার চেষ্টা করেও বেশি দূর নিতে পারেননি।  অশ্বিনের তোপে অ্যালেক্স কেরি ৩৩ বলে ৩৬ রান করে আউট হন। অধিনায়ক কামিন্সও ব্যর্থ হন। হ্যান্ডসকম্ব ৮৪ বলে ৩১ রান করে জাদেজার বলে আউট হন। বাঁ-হাতি স্পিনার টোড মারপিকে আউট করে পাঁচ উইকেট পূর্ণ করেন তিনি। শেষে বোলান্ডকে ফিরিয়ে অজিদের অলআউট করেন অশ্বিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *