বাংলাদেশের পণ্য রপ্তানির জন্য আরেকটি ট্রানজিট দিলো ভারত

অর্থনীতি

বাংলাদেশের পণ্য তৃতীয় দেশে রপ্তানির জন্য আরেকটি ট্রানজিট দিয়েছে ভারত। এর মাধ্যমে দিল্লি এয়ার কার্গো হয়ে ইউরোপ, মধ্যপ্রাচ্য এবং এশিয়ার বিশাল বাজারে প্রবেশের বাড়তি সুবিধা পেল বাংলাদেশি পণ্য।

শনিবার এ অনুমতি দিয়েছে ভারতের সেন্ট্রাল বোর্ড অব ইনডাইরেক্ট ট্যাপেস অ্যান্ড কাস্টমস (সিবিআইসি)। এর আগে শুধু কলকাতা বিমানবন্দর হয়ে অন্য দেশে আকাশপথে ট্রানজিট সুবিধা দেওয়া হয়।

সিবিআইসির এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আগামী বুধবার থেকে এ সুবিধা নেওয়া যাবে। আগ্রহী পক্ষের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ২০২০ সালের ২২ জুনের ২৯/২০২০-কাস্টমস সার্কুলার সংশোধনের মাধ্যমে এ সুযোগ তৈরি করা হয়। বোর্ডের পক্ষ থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এ অনুমোদন কার্যকর থাকবে।

আগের নিয়ম অনুযায়ী, ২০২০ সালের ২২ জুন থেকে ভারতের পেট্রাপোল স্থল বন্দরের শুল্ক স্টেশন ব্যবহার করে সড়কপথে কলকাতা বিমানবন্দর এবং আকাশপথে তৃতীয় দেশে পরিবহণের ট্রানজিট সুবিধা পেয়ে আসছে বাংলাদেশ। নতুন সুবিধায় একই শুল্ক্ক স্টেশন ব্যবহার করে সড়কপথে দিল্লির এয়ার কার্গো কমপেল্গপ হয়ে পণ্য রপ্তানি করতে পারবে বাংলাদেশ।

দিল্লির ক্যাল লজিস্টিকস সলিউশনসের সহপ্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক বিনীত মালহোত্রা বলেন, আকাশপথে পণ্য পরিবহণের ক্ষেত্রে ভারতীয় উপমহাদেশে দিল্লি এয়ার কার্গো একটি অন্যতম প্রধান হাব। সেখানে ট্রানজিট সুবিধা পাওয়ায় কিছুটা সাশ্রয়ে বিদেশের বাজারে পণ্য নিতে পারবেন বাংলাদেশি রপ্তানিকারকরা। কেননা, দিল্লি এয়ার কার্গো ভাড়া বাংলাদেশের তুলনায় অনেকটাই কম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *