ইংল্যান্ড সিরিজ কেমন উইকেটে খেলবে বাংলাদেশ

ক্রিকেট ক্রীড়া জগত

বিপিএলে ঢাকা, চট্টগ্রাম ও সিলেটের উইকেট ছিল প্রশংসিত। স্পোর্টিং উইকেটের প্রশংসা করেছেন কোচ-খেলোয়াড় সবাই। কিন্তু আগামী মাসে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজের উইকেট কেমন হবে, সেটা নিয়েও চলছে আলোচনা।

তবে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন জানিয়েছেন, সাম্প্রতিক সময়ে যে উইকেটে খেলা হয়েছে, তেমনই হবে। তবুও বিসিবি প্রধানের বক্তব্যে একটা অস্পষ্টতা থেকেই যায়, বিপিএলে স্পোর্টিং উইকেটে খেলা হলেও এর কিছুদিন আগেই ভারত সিরিজে দেখা গেছে সেই মরা উইকেট।

আজ সন্ধ্যায় সংবাদমাধ্যমকে পাপন বলেন, ‘ইংল্যান্ডের ক্ষেত্রে এটা (নিজেদের কন্ডিশন অনুযায়ী উইকেট) কাজে দেবে না। মনে রাখতে হবে, ওরা চ্যাম্পিয়ন। ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিতে। যেকোনো কন্ডিশনে খেলতে তাদের সেই খেলোয়াড়, প্রস্তুতি, শক্তি আছে তাদের। স্পিন উইকেট করলে তারা এতে শক্তিশালী, পেস সহায়ক করলে পেসেও শক্তিশালী। আমরা মনে হয়, সাম্প্রতিক সময়ে যে ধরনের উইকেটে খেলে আসছি, তেমনই হবে। উদাহরণ হিসেবে বলা যায়, ভারতের সঙ্গে যে উইকেটে খেলেছি। খুব বেশি স্পিনসহায়ক করলে সুবিধা করতে পারব না। আবার পেস সহায়ক করেও পারা যাবে না। মাঝামাঝিতে যাওয়াই ভালো হবে।’

পাপন জানালেন, উইকেট  হবে অধিনায়ক ও কোচের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী। তিনি বলেছেন, ‘এ সিদ্ধান্ত নিতে কোচের চেয়ে অধিনায়কের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা বেশি। দল দেওয়ার পর কোচের সঙ্গে কথা বলে উইকেটের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত জানায় অধিনায়ক। আমার ধারণা, অস্বাভাবিক কোনো উইকেটে আমরা যাব না। যেমন উইকেটে আমরা খেলে এসেছি, এমনই হবে।’

বাংলাদেশ দলের জন্য সহকারী কোচ খোঁজ করার কথা জানিয়েছিল বিসিবি। আজ সভাপতি বললেন, ‘আমরা সহকারী কোচের জন্য আজ বিজ্ঞাপন দিয়েছি। আশা করছি দেশি ও বিদেশি যারাই আগ্রহী, তারা আবেদন করবেন। সাধারণত এ ধরনের বিজ্ঞাপনে বিদেশিরা আবেদন করে। এবার চাই দেশি আগ্রহীরা যেন আবেদন করে। অনেক কথাবার্তা বলে কিন্তু আবেদন করে না। এই পজিশনে হলে তো হলো, না হলেও আমরা অন্য জায়গায় সুযোগ করে দিতে। যেন ভবিষ্যতে এখানে আসতে পারে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *