জ্বর-সর্দি-কাশিত-ভারতে রোগীদের এন্টিবায়োটিক না দেওয়ার পরামর্শ

আন্তর্জাতিক

ভারতে প্রতিটি চিকিৎসকদেরকে মৌসুমি জ্বর, সর্দি, কাশি বা ঠান্ডাজনিত অসুস্থ রোগীদের ব্যবস্থাপত্রে এন্টিবায়োটিক না লেখার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার (৩ মার্চ) ইন্ডিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (আইএমএ) তাদের সব সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম প্ল্যাটফর্এ মন পরামর্শ সংবলিত একটি নোটিস প্রকাশ করে। খবর: টাইমস অব ইন্ডিয়া’র।

গত কয়েকদিনে ভারতে মৌসুমি জ্বর ও ঠান্ডাজনিত সর্দি-কাশি ও ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাসের রোগীর সংখ্যা বেড়েছে।

আইএমএ’র অ্যান্টি-মাইক্রোবিয়াল রেজিস্ট্যান্স কমিটির নোটিসটিতে বলা হয়েছে, মৌসুমী জ্বর পাঁচ থেকে সাত দিন থাকবে। তিন দিনের মাথায় জ্বর চলে যায়, কিন্তু সর্দি-কাশি তিন সপ্তাহ পর্যন্ত থাকতে পারে। আইএমএ’র ওই কমিটিতে ভারতের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকেরা রয়েছেন।

পঞ্চাশোর্ধ্ব বয়সের এবং ১৫ বছরের কম বয়সিদের জ্বর এবং একই সঙ্গে শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা দেখা দিচ্ছে ভারতে। চিকিৎসকদের বলা হয়েছে, এন্টিবায়োটিক এড়িয়ে, শুধু উপসর্গভিত্তিক চিকিৎসা দিতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *