যাদের হাতে উঠবে অস্কার

বিনোদন

রোববার রাতে যুক্তরাষ্ট্রে বসবে ৯৫ তম একাডেমি অ্যাওয়ার্ড। বাংলাদেশ সময় ১৩ মার্চ সকাল ৬টায় এই অনুষ্ঠান প্রচার শুরু হবে। বিশ্ব চলচ্চিত্রের বড় এই আয়োজন নিয়ে  উত্তেজনার পারদ একটু বেশিই থাকে। এবারও তার ব্যতিক্রম নয়। এবারের অস্কারের মঞ্চে কে আলো ছড়াবে, কে জিতবে তা নিয়ে নানা জল্পনা-কল্পনা চলছে। একাধিক ছবি আছে আলোচনায়। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম নিউইয়র্ক পোস্টের অস্কার প্রেডিকশন এক নজরে দেখে নেয়া যাক।

সেরা ছবি হতে পারে  ‘এভরিথিং এভরিহয়ার’

 স্টিভেন স্পিলবার্গের এই ছবিটি যুক্তরাষ্ট্রের অ্যারিজোনায় স্পিলবার্গের শৈশব-কৈশোর ও তার বেড়ে ওঠার গল্প নিয়ে তৈরি হয়েছে। এর আগে  ক্রিটিকস চয়েজ, ডিরেক্টরস গিল্ড, গোল্ডেন গ্লোব, স্ক্রিন অ্যাক্টরস গিল্ড অ্যাওয়ার্ডস জয় করেছে ছবিটি।  এবার অপেক্ষায়  অস্কার জয়ের। অস্কার আসরে  ১১ শাখায় মনোনয়ন পেয়ে জয়ের সবচয়ে কাছাকাছি অবস্থান করছে।‘এভরিথিং এভরিহয়ার অল অ্যাট ওয়ান্স’। সমালোকরা ধারণা করছেন  সেরা সিনেমা, সেরা অভিনেত্রী, সেরা পরিচালক—তিন পুরস্কারের অন্তত দুটি জিতবে এই ছবি। 

সেরা নির্মাতা কে জিতবে?

সমালোচকদের ধারণা এবারের অস্কার জ ড্যানিয়েল কোয়ান ও ড্যানিয়েল শাইনার্ট (এভরিথিং এভরিহোয়্যার অল অ্যাট ওয়ান্স)। তবে  ‘অ্যাভাটার: দ্য ওয়ে অব ওয়াটার’ ছবির জন্য সেরা নির্মাতার অ্যাওয়ার্ড জেমস ক্যামেরনের পাওয়া উচিত বলেও ধারণা তাদের। কিন্তু অ্যাভাটার নির্মাতা মনোনয়নই পাননি।  পরে এই পুরস্কারের যোগ্য ‘টার’ নির্মাতা। এই দুর্দান্ত থ্রিলার ছবির জন্য সেরা নির্মাতার পুরষ্কারটি টোড ফিল্ডের ঝুলিতেই যাওয়া উচিত।

সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার যার হতে উঠতে পারে

যারা অস্কার নিয়ে খোঁজ খবর করেন তাদের ধারণা‘এভরিথিং এভরিহয়ার’-এর জন্য সেরা অভিনেত্রী হবেন মিশেল ইয়ো। তবে তার থেকে ফসকে গেলে টার সিনেমার কেট ব্লানচেট এই পুরস্কার পেতে পারেন।

সেরা অভিনেতা কে হবেন?

অধিকাংশ সমালোকদের দাবি অস্কারের মঞ্চে এবার সেরা অভিনেতা হবেন অস্টিন বাটলার। তাদের মতে এবছরের অস্কারে ব্রেন্ডন ফ্রেজারের ‘দ্য হোয়েল’-এর পারফর্মেন্স আলোচনায়। কিন্তু পুরস্কার জেতা উচিত অস্টিন বাটলারের। কারণ ‘এলভিস’ ছবিতে তাঁর অসাধারণ পারফর্মেন্সের রেশ বহুকাল দর্শকের মনে রয়ে যাবে।

সেরা পার্শ্ব-অভিনেতা:

সেরা পার্শ্ব-অভিনেতার পুরস্কার কে হুই কোয়ান এবার সেরা পার্শ্ব অভিনেতার পুরস্কার পেতে পারেন। ’এভরিথিং এভরিহোয়্যার অল অ্যাট ওয়ান্স’ ছবিতে অনবদ্য অভিনয়ের জন্য এই পুরস্কার পেতে পারেন তিনি। 

সেরা পার্শ্ব-অভিনেত্রীর পুরস্কার যার ঝুলিতে 

‘ব্ল্যাক প্যান্থার: ওয়াকান্ডা ফরেভার’ ছবির জন্য  অ্যাঞ্জেলা ব্যাসেট  সেরা সেরা পার্শ্ব-অভিনেত্রীর পুরস্কার পেতে পারেন। 

সেরা আন্তর্জাতিক ফিচার ফিল্ম

‘অল কোয়ায়েট অন দ্য ওয়েস্টার্ন ফ্রন্ট (জার্মানি’) এ বিভাগে সেরা হতে পারে। কারণ, ১৯২৮ সালে প্রকাশিত জার্মান কথাশিল্পী এরিক মারিয়া রেমার্কের উপন্যাস ‘অল কোয়ায়েট অন দ্য ওয়েস্টার্ন ফ্রন্ট’ অবলম্বনে তৈরি হয়েছে একই নামের ছবিটি। ছবির গল্প প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পটভূমিতে তৈরি। প্রথম বিশ্বযুদ্ধের বর্বরতা, ভয়াবহতা, সৈনিকদের মানসিক বিপর্যয় তুলে ধরা হয়েছে ছবিতে। যুদ্ধের অমানবিক নৃশংসতা তরুণ সৈনিকদের মনে কত গভীরভাবে দাগ কাটে, তা দেখানো হয়েছে সিনেমায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *