মোদির আমলে ১৪১ এমপিকে বরখাস্ত করে রেকর্ড গড়ল ভারত

আন্তর্জাতিক

ভারতীয় পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভা ও নিম্নকক্ষ লোকসভা থেকে গতকাল সোমবার এক দিনে বিরোধীদলীয় ৭৯ জন এমপিকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছিল। আজ মঙ্গলবার একই পরিণতি বরণ করেছেন আরও ৪৯ জন এমপি। সব মিলিয়ে বিগত কয়েক দিনে ভারতীয় পার্লামেন্ট থেকে ১৪১ জন এমপিকে সাময়িক বরখাস্ত করা হলো, যা ভারতের ইতিহাসে সর্বোচ্চ। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা আজ লোকসভার অধিবেশন চলাকালে কাশ্মীরের ন্যাশনাল কনফারেন্সের নেতা ও সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আব্দুল্লাহ, কংগ্রেসের নেতা শশী থারুর, ক্রান্তি চিদাম্বরম, ন্যাশনাল কংগ্রেসের সুপ্রিয়া সুলে, সমাজবাদী পার্টির ডিম্পল যাদবসহ সব মিলিয়ে ৪৯ জনকে সাময়িক বরখাস্ত করেন।

গত সপ্তাহে লোকসভার চার স্তরের নিরাপত্তা ভেদ করে অধিবেশনস্থলে দুই ব্যক্তি ঢুকে পড়াকে কেন্দ্র করে এর জবাবদিহি চেয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্য দাবি করে প্রতিবাদ করছিলেন বিরোধী দলীয় এমপিরা। পার্লামেন্টের দুই কক্ষেই তাঁরা এ নিয়ে বিক্ষোভ-প্রতিবাদ করছিলেন।

তবে লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লার বক্তব্য হলো—লোকসভার নিরাপত্তার বিষয়টি লোকসভার নিজস্ব সচিবালয়ের দায়িত্বের আওতায় পড়ে, কেন্দ্রীয় সরকারের আওতায় নয়। তিনি বলেন, ‘সরকার লোকসভার সচিবালয়ের দায়দায়িত্বে হস্তক্ষেপ করতে পারে না। আমরা তা কোনোভাবেই হতে দেব না।’

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও বিষয়টিকে গুরুতর বলে উল্লেখ করেছেন। তিনি দৈনিক জাগরণ নামে এক সংবাদপত্রকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেন, এটি খুবই গুরুতর ইস্যু এবং এ ঘটনার তদন্ত হওয়া উচিত। সে সময় তিনি বলেছিলেন, বিষয়টি নিয়ে আর কোনো বিতর্ক হওয়ারও প্রয়োজন নেই।

উল্লেখ্য, ভারতের পার্লামেন্টের এই সাময়িক বরখাস্তের ধারা শুরু হয় গত সপ্তাহেই। লোকসভার অধিবেশনস্থলে দুই ব্যক্তি ঢুকে পড়ার দিনেই বিরোধী এমপিরা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের বক্তব্য দাবি করতে থাকেন। সেদিন ১৩ লোকসভা ও ১ রাজ্যসভা এমপিকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। তাঁদের বিরুদ্ধে বেআইনি আচরণের অভিযোগ আনা হয়। পরে গতকাল সোমবার অধিবেশন আবার শুরু হওয়ার পর পার্লামেন্টের দুই কক্ষ থেকেই ৭৯ জন এমপিকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। সর্বশেষ আজ মঙ্গলবার আরও ৪৯ জনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *