হারের পর নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক বললেন, ‘কঠিন দিন গেল’

ক্রিকেট ক্রীড়া জগত

‘কঠিন দিন গেল। বাংলাদেশকে কৃতিত্ব দিতে হবে।’—বাংলাদেশের বিপক্ষে হারের পর কথাটা নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক মিচেল স্যান্টনারের। বোলিং-ব্যাটিং—দুই জায়গাতেই আজ কিউইদের ওপর দাপট দেখিয়ে ঐতিহাসিক জয় পেয়েছেন নাজমুল হোসেন শান্তরা।

নেপিয়ারে সিরিজের তৃতীয় ওয়ানডে জয়ে হোয়াইটওয়াশ এড়ানোর পর একই ভেন্যুতে সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি জয়। এই দুই জয়ই নিউজিল্যান্ডের মাটিতে প্রথম বাংলাদেশের। এমন একটি ম্যাচ জয়ে শুরু থেকে সামনে থেকে বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দেন বোলাররা। দলীয় ১ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে বসে নিউজিল্যান্ড।

শেষ পর্যন্ত ম্যাচ হারের পেছনে সেটিকেই দায়ী করলেন স্যান্টনার। কিউই অধিনায়ক ম্যাচ শেষে বলেছেন, ‘তাদের বোলাররা যেভাবে বোলিং করেছে তা অসাধারণ ছিল। আমার মনে হয়, এখানে আমাদের ১৫০-১৬০ রান করার প্রয়োজন ছিল। আমরা বোলিংয়ে ভালো করে ম্যাচটা জমানোর চেষ্টা করেছিলাম। তবে ব্যাটিংয়ে আমাদের পাওয়ারপ্লেটা খুবই বাজে গিয়েছে।’

তবে শুরুর ধাক্কা কাটিয়ে কিউইদের রানের ফেরান মিডল-অর্ডার ব্যাটারা। জিমি নিশামের ৪৮ ও স্যান্টনারের ২৩ রানের সুবাদে ৯ উইকেটে ১৩৪ রানের সংগ্রহ পায় স্বাগতিকেরা। হারলেও এভাবে ব্যাটারদের ফেরাকে ইতিবাচক দৃষ্টিকোণ থেকে দেখছেন স্যান্টনার, ‘কিছু (ইতিবাচক দিক) তো আছে। ব্যাটিংয়ে শেষ দিকে ফিরে আসাটা ভালো ছিল। (জেমস) নিশাম দারুণ খেলেছে পরিস্থিতি অনুযায়ী। বোলিংয়েও আমরা ভালো করেছি বলে মনে হয়। (বেন) সিয়ার্স বেশ ভালো ছিল বল হাতে, টিম (সাউদি) এবং অ্যাডাম (মিলনে) যেমনটা করে আসছে অনেক দিন ধরে।’

এই জয়ে একটি চক্রও পূরণ করল বাংলাদেশ। এর আগে ২০২১ সালে মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে প্রথম টেস্ট জিতেছিল তারা। সীমিত ওভারের সিরিজ খেলতে এবার নিউজিল্যান্ডে গিয়ে ইতিহাস গড়ল দুটি। গত ২৩ ডিসেম্বর নেপিয়ারে প্রথম ওয়ানডে জয় আর একই ভেন্যুতে টি-টোয়েন্টি জয়। এই ভেন্যুই যেন বাংলাদেশের সবচেয়ে প্রিয় হয়ে উঠেছে। হাসতে হাসে সেই কথা বললেন স্যান্টনার, ‘তারা (বাংলাদেশ) নেপিয়ার ভালোবাসে (হাসি)। তারা যেই লেন্থে বল করছে তাতে ক্রস ব্যাটে খেলাটা বিপজ্জনক হতে পারে আমাদের জন্য।’

টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয় সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচটি হবে মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে। সেই ম্যাচ জিতে ঘুরে দাঁড়াতে চান স্যান্টনার, ‘মাউন্ট (মঙ্গানুইয়ে) ভিন্ন কন্ডিশনে, ভিন্ন পিচে হয়তো ভিন্ন কিছুও হতে পারে। আমাদের পরিকল্পনা অনুযায়ী খেলেই ঘুরে দাঁড়াতে হবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *