সোহাগের কেলেঙ্কারির বছরে জামালদের ঘিরে নতুন আশা

ক্রীড়া জগত ফুটবল

মার্চে সিলেটে আধা পেশাদার সিশেলসের কাছে জাতীয় দলের হারের পর ‘জাত গেল, জাত গেল’ রব উঠেছিল। জুনে তাই ভারতে সাফ খেলতে যাওয়ার আগে জামালরা যখন লক্ষ্য হিসেবে সেমিফাইনাল খেলার কথা বললেন, সেটি কথার কথাই ধরা হয়েছিল। ১৪ বছর ধরে সাফের গ্রুপ পর্বে কাটা পড়া বাংলাদেশ লেবানন, মালদ্বীপ আর ভুটান-বাধা টপকে শেষ চারে খেলবে—এমন বাজি ধরার লোক কমই ছিল। প্রথম ম্যাচে লেবাননের কাছে শেষ ১০ মিনিটে ২ গোল হজম করে হার। তবে পরের দুই ম্যাচে মালদ্বীপ ও ভুটানের বিপক্ষে পিছিয়ে পড়েও দারুণ দুই জয়ে ১৪ বছর পর জামালরা খেলেছেন শেষ চারে। সেপ্টেম্বরে ঘরের মাঠে ফিফা প্রীতি ম্যাচেও আফগানিস্তানকে জিততে দেননি লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। এখানেই শেষ নয়, অক্টোবরে মালদ্বীপকে হারিয়ে জায়গা করে নেন ২০২৬ বিশ্বকাপ বাছাইপর্বেও। যেখানে লেবাননকে নিজেদের মাঠে ১-১ গোলে রুখে দিয়ে মোরসালিন-রাকিবরা এই বার্তাই দিয়েছেন—পথ হারায়নি বাংলাদেশ!

উত্থান
দূরপাল্লার শট থেকে গোল করার দক্ষতা ক্লাব ফুটবলে আগে দেখালেও  ১৮ বছর বয়সী শেখ মোরসালিনকে বাংলাদেশের ফুটবলপ্রেমীরা চিনেছেন গত সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে। মালদ্বীপ ও ভুটানের বিপক্ষে পরপর দুই ম্যাচে গোল করে আলোচিত হন এই তরুণ ফরোয়ার্ড। আবার মদ-কাণ্ডে নিষিদ্ধ হয়ে পড়েন বিতর্কের মুখেও। সব বিতর্ক ম্লান করে মোরসালিন ফেরেন লেবানন ম্যাচ দিয়ে। বক্সের বাইরে থেকে তাঁর দূরপাল্লার এক শটে লেবাননকে রুখে দেয় বাংলাদেশ।

বিতর্ক
সেপ্টেম্বরে এএফসি কাপের প্রথম ম্যাচে মালদ্বীপের ক্লাব মাজিয়ার কাছে ৩-১ গোলে হেরে বসে বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস। সেই ম্যাচের পর দেশে ফেরার পথে বিমানবন্দরে ৬৪ বোতল মদসহ আটক হন বসুন্ধরার পাঁচ ফুটবলার। বিতর্কিত এই কাণ্ডে ক্লাব থেকে শাস্তি পান তপু বর্মণ, আনিসুর রহমান, শেখ মোরসালিন, রিমন হোসেন ও তৌহিদুল আলম সবুজ। জাতীয় দলেও ব্রাত্য হয়ে পড়েন তপু, জিকো ও মোরসালিন। শাস্তি শেষে এক তৌহিদুল আলম সবুজ ছাড়া বাকি চার ফুটবলারকেই ক্লাবে ফিরিয়েছে বসুন্ধরা।

ব্যর্থতা
মেয়েদের সাফ জয়ের কয়েক মাস পরই শুরু হওয়া ২০২৩ সালকে নারী ফুটবলে নতুন সম্ভাবনার বছর ভাবা হয়েছিল। কিন্তু তা হয়নি। আর্থিক সমস্যার অজুহাতে মার্চে মেয়েদেরকে মিয়ানমারে অলিম্পিকে বাছাইয়ে খেলতে পাঠায়নি বাফুফে। মেয়েদের ঘরোয়া ফুটবল আয়োজনেও ব্যর্থ বাফুফে। মেয়েদের ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ আয়োজনের সাড়ম্বর ঘোষণা দিয়েও তা না হওয়ায় একটা অস্থিরতা তৈরি হয় মেয়েদের ফুটবলে। ক্ষোভে-হতাশায় বেশ কয়েকজন নারী ফুটবলার অবসরের ঘোষণাও দেন। জাতীয় দল থেকে সরে দাঁড়ান নারী দলে দীর্ঘদিনের কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন। কেটে পড়েন ব্রিটিশ টেকনিক্যাল ডিরেক্টর পল স্মলিও। বেতন-ভাতা নিয়ে আন্দোলন করেন নারী ফুটবলাররা। টানা পাঁচ ম্যাচ জয়হীন থাকার পর ডিসেম্বরে সিঙ্গাপুরের বিপক্ষে দুই ম্যাচ জিতে  শেষ করলে মোটাদাগে বিদায়ী এই বছরে নিচেই নেমেছে মেয়েদের ফুটবল।

আক্ষেপ
দেশের প্রথম ক্লাব হিসেবে এএফসি চ্যাম্পিয়নস লিগের বাছাইপর্ব খেলেছিল বসুন্ধরা কিংস। সেই বাধা টপকাতে না পারলেও এএফসি কাপে বসুন্ধরাকে ঘিরে বড় প্রত্যাশাই ছিল। মাজিয়ার কাছে প্রথম ম্যাচে ৩-১ গোলে হারলেও সেই ধাক্কা কাটিয়ে উঠে পরের পর্বে খেলার পথে ছিল বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নরা। শেষ ম্যাচে ওডিশা এফসির সঙ্গে ড্র হলেই পরের পর্বে চলে যেত বসুন্ধরা। কিন্তু শেষ ম্যাচে রেফারির বিতর্কিত সিদ্ধান্তে লাল কার্ড দেখেন বসুন্ধরা মিডফিল্ডার আসরোর গফুরভ। ০-১ গোলে হেরে আবারও গ্রুপ পর্বেই বিদায় কিংসের।

কেলেঙ্কারি
কাজী সালাউদ্দিন সভাপতি হলেও সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগকে বলা হতো বাফুফের গদিহীন রাজা। সবকিছুই নিয়ন্ত্রণে রাখতেন তিনি। দীর্ঘ এক দশকের এই সাধারণ সম্পাদককে গত ১৪ এপ্রিল সন্ধ্যায় ক্রয়সংক্রান্ত অনিয়মের অভিযোগে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ করে ফিফা। সোহাগ-কাণ্ডে এলোমেলো হয়ে পড়ে বাফুফে। বাড়তে থাকে একের পর এক চাপ। চাপের মুখে নিজেদের তদন্ত কমিটি গঠন করে বাফুফে। অনিয়মের অভিযোগে পদত্যাগ করেন প্রধান অর্থ কর্মকর্তাসহ চার কর্মকর্তা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *