তিন দিনেই দক্ষিণ আফ্রিকায় বিধ্বস্ত ভারত

ক্রিকেট ক্রীড়া জগত

এক পাশে আসা যাওয়ার মিছিল, অন্যপাশে বিরাট কোহলির একার লড়াই—তারপরও শেষ রক্ষা হলো না ভারতের। তৃতীয় দিনেই হয়ে গেল সেঞ্চুরিয়নে সিরিজের প্রথম টেস্টের দফারফা। দক্ষিণ আফ্রিকার পেসারদের তোপে লন্ডভন্ড ভারত হারল ইনিংস ও ৩২ রানে। 
 
দ্বিতীয় সেশনে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে সফরকারীরা অলআউট ১৩১ রানে। মার্কো ইয়েনসেনের বলে কোহলি কাগিসো রাবাদার হাতে বন্দী হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে নিশ্চিত হয়ে যায় ভারতের হার। 

এমন অসহায় আত্মসমর্পণের পর রোহিতের কথা, ‘জেতার জন্য আমরা যথেষ্ট ভালো ছিলাম না।’ আর ১৮৫ রানে ম্যাচসেরা হওয়া ডিন এলগারের কাছে এই টেস্ট বিশেষ কিছু। ক্যারিয়ারের শেষ সিরিজ খেলা প্রোটিয়া ওপেনার বললেন, ‘আমার জন্য বিশেষ কিছু। মুহূর্তটাকে উপভোগ করছি।’ 

এলগারের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়েই প্রথম ইনিংসে ৪০৮ রানের সংগ্রহ পায় স্বাগতিকেরা। ৫ উইকেটে ২৫৬ রান নিয়ে দিন শুরু করে দক্ষিণ আফ্রিকা। ১৪০ রান নিয়ে ব্যাটিংয়ে নামা এলগার মধ্যাহ্নভোজের আগে ফিরলেও ফিফটি তুলে নেন ইয়ানসেন। ৩ রান নিয়ে ব্যাটিংয়ে নেমে ৮৪ রানে অপরাজিত ছিলেন তিনি। 

প্রথম ইনিংসেও ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়া ভারত ২৪৫ রানের সংগ্রহ পেয়েছিল লোকেশ রাহুলের দুর্দান্ত সেঞ্চুরিতে। তবে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যর্থ তিনি। ব্যর্থ রোহিতও। কোহলি (৭৬) ও শুবমান গিল (২৬) ছাড়া ভারতের আর কেউ দুই অঙ্কের রান ছুঁতে পারেননি। দুজনকেই ফেরান ৩ উইকেট নেওয়া ইয়ানসেন। ৯৬ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে বসা ভারতের হারটা নিশ্চিত হয় তৃতীয় সেশনে। নন্দ্রে বার্গার নিয়েছেন ৪ উইকেটে, রাবাদার শিকার ২ টি। চা বিরতির আগে ৬২ রানে ৩ উইকেট উইকেট হারিয়ে বসে সফরকারীরা। কোহলি পাল্টা আক্রমণ চালালেও দলকে লজ্জাজনক হার থেকে বাঁচাতে পারেননি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *