জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়: এক আবেদনে মিলবে ১৯ সেবা 

শিক্ষা

সার্টিফিকেট, মার্কশিট, ট্রান্সক্রিপ্ট, এডমিট কার্ডসহ পরীক্ষা সংক্রান্ত ১৯টি সেবা একই আবেদনে করতে পারবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। একই সঙ্গে ঘরে বসে মোবাইলের মাধ্যমে ফি জমা দেওয়া যাবে। যে বিষয়ে আবেদন করা হবে তা তৈরি হলে এসএমএস ও ই-মেইল পাবেন শিক্ষার্থীরা। 

আজ মঙ্গলবার সকালে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. মশিউর রহমানের সভাপতিত্বে এক জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। 

সভায় উপাচার্য বলেন, দ্রুত ও স্বল্প মূল্যে সেবা প্রদানের জন্য নতুন সফটওয়্যার ডেভেলপ করা হয়েছে। এর ফলে এখন থেকে শিক্ষার্থীরা ঘরে বসে অল্প সময়ের মধ্যে সেবা পাবেন। 

সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ১৯ টি সেবা একই আবেদনে পেতে হলে একজন শিক্ষার্থীকে প্রথমে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে সার্ভিস মেন্যুতে ক্লিক করে স্টুডেন্ট লগ ইনে গিয়ে এক্সামিনেশন সার্ভিস মেন্যুতে যেতে হবে। এরপর পর্যায়ক্রমে কম্বাইন্ড সার্ভিস মেন্যুতে ক্লিক করে ডকুমেন্টস কারেকশন মেন্যুতে ক্লিক করে ৬টি সেবা একসঙ্গে গ্রহণ করতে পারবে। 

এই সেবাগুলো হলো: এডমিট কার্ড, প্রভেশনাল সার্টিফিকেট, মার্কশিট, অরিজিনাল সার্টিফিকেট, ট্রান্সক্রিপ্ট, ট্রান্সক্রিপ্ট (দ্বিতীয়বার)। আর ডকুমেন্টস ডুপ্লিকেট মেন্যুতে ক্লিক করে ৪টি সেবা গ্রহণ করতে পারবে। এগুলো হলো এডমিট কার্ড, প্রভেশনাল সার্টিফিকেট, মার্কশিট, অরিজিনাল সার্টিফিকেট। 

একইভাবে ইমপ্রুভমেন্ট মেন্যুতে ক্লিক করে দুটি সেবা নিতে পারবে। এর মধ্যে রয়েছে মার্কশিট, সার্টিফিকেট। ট্রান্সলেশন মেন্যুতে ক্লিক করে নিতে পারবেন তিনটি সেবা। এর মধ্যে রয়েছে এডমিট কার্ড, মার্কশিট, প্রভেশনাল সার্টিফিকেট। ফ্রেশ কপি মেন্যুতে ক্লিক করে নিতে পারবেন চারটি সেবা। এর মধ্যে রয়েছে এডমিট কার্ড, মার্কশিট, প্রভেশনাল সার্টিফিকেট, অরিজিনাল সার্টিফিকেট। এই সেবাগুলো একজন শিক্ষার্থী একসঙ্গে নিতে পারবে। আবার আগের মত আলাদাভাবেও সেবা গ্রহণ করতে পারবে। তবে একসঙ্গে আবেদন করলে অর্থ এবং সময় উভয় দিক থেকেই সাশ্রয় হবে। 

সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন স্নাতকোত্তর শিক্ষা, প্রশিক্ষণ ও গবেষণা কেন্দ্রের ডিন অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ বিন কাশেম, স্নাতক পূর্ব শিক্ষা বিষয়ক স্কুলের ডিন অধ্যাপক ড. মো. নাসির উদ্দিন, তথ্য প্রযুক্তি (আইসিটি) দপ্তরের পরিচালক মো. মুমিনুল ইসলাম, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক বদরুজ্জামান, কলেজ পরিদর্শক ফাহিমা সুলতানা, ভর্তি ও রেজিস্ট্রেশন সেলের সচিব ড. আলী জাফর চৌধুরী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *