জেলেনস্কি একটা ‘আবর্জনা’: সাবেক রুশ প্রেসিডেন্ট

আন্তর্জাতিক

রাশিয়ার বেলগোরদে ইউক্রেনের হামলার প্রসঙ্গে জেলেনস্কিকে ‘আবর্জনা’ বলে সম্বোধন করেছেন রাশিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট দিমিত্রি মেদভেদেভ। তিনি বলেন, মস্কো সৈন্য শুধু সামরিক স্থাপনাকে লক্ষ্যবস্তু করে, তারা কিয়েভের সেনাদের মতো নয়। রাশিয়ার বার্তা সংস্থা আরটি নিউজের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে। 

বর্তমানে রাশিয়ার নিরাপত্তা পরিষদের ডেপুটি চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন দিমিত্রি মেদভেদেভ। গত শনিবার সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম ভিকে–তে একটি পোস্টে মেদভেদেভ বলেন, ‘এটা স্পষ্ট যে, সম্মুখ যুদ্ধে কোনো পরিবর্তন না করতে পেরে তারা বেলগোরদে সন্ত্রাসী হামলা ও আমাদের নাগরিকদের হত্যার মতো অপরাধ করেছে।’ 

গত শনিবার সীমান্ত থেকে ৪০ কিলোমিটার ভেতরে অবস্থিত রাশিয়ার বেলগোরদ শহরে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা করে ইউক্রেন। বেলগোরদের গভর্নর ব্যাচেস্লাভ গ্লাদকভ বলেন, ইউক্রেনের কয়েকটি শহরে রাশিয়ার বোমা হামলা চালানোর পর কিয়েভ এ হামলা চালায়। কিয়েভের হামলায় ২৪ জন নিহত ও ১০৮ জন আহত হয়। 

মেদভেদেভ আরও বলেন, ‘জেলেনস্কির মতো কোনো আবর্জনাই এমন স্বপ্ন দেখতে পারে যে, আমাদের সশস্ত্র বাহিনী কিয়েভকে গাজা উপত্যকায় পরিণত করবে।’ তিনি বলেন, ‘ইউক্রেনের নেতারাও মনে মনে হয়তো মস্কো থেকে এমন কোনো আক্রমণ আশা করছে। এতে তারা সহজে তাদের প্রভুর কাছে আরও অস্ত্র ভিক্ষা চাইতে পারবে!’ 

এদিকে জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস ইউক্রেনের হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন উল্লেখ করে রাশিয়ার রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত সংবাদ সংস্থা রিয়া জানায়, ইউক্রেনের হামলায় আন্তর্জাতিক মানবাধিকারের লঙ্ঘন হয়েছে। 

মস্কোর নিরাপত্তা সংস্থা থেকে একটি সূত্র আরটি–কে বলে, জেলেনস্কি ব্যক্তিগতভাবে তাঁর বাহিনীকে রাশিয়ার শহরে হামলা চালাতে নির্দেশ দিয়েছেন। 

গত শনিবার রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভা বলেন, ‘এ সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের পেছনে রয়েছে ব্রিটেন এবং যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়নেরও এর দায় নেওয়া উচিত।’ 

ইউক্রেনের প্রতিরক্ষা কর্মকর্তাদের দাবি, তাঁদের বাহিনী সামরিক স্থাপনাকেই বিশেষ করে লক্ষ্যবস্তু করেছিল। বেলগোরদে বেসামরিকদের হতাহতের জন্য রুশ বিমানবাহিনীর ‘অযোগ্যতাকে’ দায়ী করেছেন তাঁরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *